Tinpahar
No Comments 13 Views

দেওয়াল

Arkajit Mandal
Chemistry Department, Visva-Bharati

ছুটতে ছুটতে একটা দেওয়াল পেলাম । থামিনি , তাই বোধহয় ধাক্কাটা লেগেছিল । অবশ্য না থামাটা কোনো দোষ ছিলনা । বোধহয় আরো জোরে ছুটতে হত । এত উচু এই পাঁচিলটাকে জানি টপকাতে পারবনা, তবুও টপকাতে আমাকে হবেই । এপারটা বড্ড খারাপ । ওপরটা ভালো কিনা তাও জানিনা , তবে ওটা নিশ্চই আলাদা। ওই আলাদাটাই যথেষ্ট ।
নখের উপর ভর করে খানিকটা ওঠার চেষ্টা করতে গিয়ে ডান হাতের একটা নখ ছিঁড়ে গেল।
রক্ত একটু পড়েছিলো এটা ঠিক, তবে সেটা অল্প । ব্যথাটাও ওই অল্পই করেছিল , কষ্টটা যেটা হচ্ছিল সেটা পড়ে গেলাম বলে , যাই হোক সেটা অন্য কথা , আপতত আবার উঠতে হবে ।
তখন কি একটা যেন ভাবছিলাম , তাই কখন যে বাচ্চাটা ছুটে গাড়ির চাকার তলায় এসেগেল দেখিনি । তাই এতটা ছুটতে হলো ।
আবার খামচে ধরলাম , তবে এবার হাতের বাঁকি নটা আঙ্গুল দিয়ে। খানিক আগে পায়ের তলাটা ফেটে না গেলে সুবিধা হতো । তখন তালকানার মত না ছুটলে হয়তো জুতোটা পায়েই থাকত । নাহ ওঠা কঠিন।
ওরা কেন মাতাল বলে চেচালো কে জানে , ওটা আমার খুব খারাপ লেগেছে । অন্য কিছু বললেই পারত। কুত্তা টুত্তা বা অন্য কিছু । শেষ অবধি ‘মাতাল’ !!!! শালা …লেলার দল যত!

ওই ওরা আসছে । নাহ দেওয়ালটাই ভেঙ্গে বেরোতেই হবে । কিন্তূ কি দিয়ে যে …..নাহ মাথাটাই শক্ত , ওটা ঠুকেই……।

About the author:
Has 212 Articles

LEAVE YOUR COMMENT

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to Top